Breaking News

মুখে মাস্ক পরে শিশুদের জিম্মি করে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ি এলাকার সাবেক এক ইউপি চেয়ারম্যানের বাসায় দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতদলের সদস্যরা ঘরের দড়জা ভেঙে বাসার লোকদের হাত-পা বেঁধে ও দুই শিশুর গলায় ছুরি ঠেকিয়ে প্রায় ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ প্রায় দুই লাখ টাকা নিয়ে গেছে। গত সোমবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, আঠারবাড়ি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আলমগীর হোসেনের উত্তর বনগাঁওয়ের নবনির্মিত দোতলা বাসায় এই ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। গত সোমবার রাত ৩টার দিকে দেয়াল টপকিয়ে নিচতলার কলাপসেবল গেটের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে ডাকাতরা।

সাবেক এই চেয়ারম্যানের স্ত্রী ফেরদৌসি বেগম জানান, বরাবরের মতো তিনি এক সন্তান লাবিবকে (১০) নিয়ে নিজ কক্ষে দরজা লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পাশের আরেকটি কক্ষে ছিল স্বামীর বাড়ি থেকে বেড়াতে আসা মেয়ে। ওই কক্ষে তিন মাসের কন্যা সন্তানকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত আনুমানিক ৩টার দিকে হঠাৎ নিজের কক্ষের দরজায় জোরে শব্দ পেয়ে ঘুম ভাঙে। দরজার পাশে কে জানতে চাইলে দরজা খুলতে বললে ডাকাত সন্দেহে জানালা দিয়ে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার দিলেই ডাকাতরা দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তাকে বেঁধে ফেলে ও শিশুসন্তান লাবিবের গলায় ছুরি ঠেকায়।

অন্যদিকে, মেয়ের কক্ষের দড়জা ভেঙে একই কায়দায় ডাকাতের আরেকটি দল মেয়েকে বেঁধে ও তার একমাত্র শিশুসন্তানের গলায় ছুরি ঠেকিয়ে অপর একটি দল মেয়ের পরনে থাকা স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয়। স্টিলের আলমারি ভেঙে ড্রয়ারে থাকা আরো স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ প্রায় দুই লাখ টাকা লুটে নেয়।

ভুক্তভোগীদের সূত্রে জানা গেছে, ডাকাতদলের সবাই মুখে সার্জিক্যাল মাস্ক পরিহিত ও প্রত্যেকের কাছে চাপাতি ছিল। ডাকাতরা আরো মালামাল চেয়ে প্রাণনাশের হুমকিও দেয়। এ ঘটনা জেনে ময়মনসিংহ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গৌরীপুর সার্কেল) ও ডিবির একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

ডাকাতির ঘটনায় ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, ঘটনার বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *