Breaking News
Home / প্রবাসীদের খবর / ফ্লাইট সিডিউল ঘোষণা হয়েছে, ঈদের পরে ও আগের টিকেটের আসল দাম জেনে নিন

ফ্লাইট সিডিউল ঘোষণা হয়েছে, ঈদের পরে ও আগের টিকেটের আসল দাম জেনে নিন

ফ্লাইট সিডিউল ঘোষণা হয়েছে, ঈদের পরে ও আগের টিকেটের আসল দাম জেনে নিন নিচের ভিডিওতে

ভিডিও দেখুন এখানে ক্লিক করে

আরও পড়ুনঃ

রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন এক লোক। কিছু একটা বলছে চাচ্ছেন। একবার এগিয়ে আসছেন তো আরেকবার পিছিয়ে যাচ্ছেন। কিছু একটা বলতে চেয়েও বলছেন না।

এমন অবস্থা দেখে তার কাছে ঢাকা পোস্টের প্রতিবেদক জানতে চান, কিছু বলবেন কি না। ঠিক তখনই দেখা গেল তার চোখজোড়া যেন পানিতে টলটল করছে।

ভারী গলায় বলেন, ভাই কী আর বলবো। গাড়ি বন্ধ, কাজ নেই। ঘরে খাবারও নেই। পানি খেয়েই রোজা রেখেছিলাম। খুব ক;ষ্টে আছি। এভাবে কতদিন চলব। কবে গাড়ি চালু হবে, কিছু জানেন?

কথাগুলো বলছিলেন পরিবহন শ্রমিক আলমগীর হোসেন। করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধে তিনি কর্মহীন হয়েছেন। তিনি জানান, ১৫ দিনের বেশি গাড়ি বন্ধ। এর মধ্যে ১০ দিন খাবার ছিল। গত পাঁচদিন ধরে খাবার নেই। খেয়ে না খেয়ে পরিবার নিয়ে আছেন।

তিনি বলেন, আজকে শুধু পানি খেয়ে রোজা রাখতে হয়েছে। ল;জ্জায় মানুষের কাছে হাত পাততে পারি না। কিন্তু এখন আর পারতেছি না। কি করব তাও বুঝতেছি না।

গাড়ি চালু না হলে কি চলবো? অন্য কোনো কাজও জানি না। ৪০ বছর গাড়ির কাজেই আছি। এখন সিডিএম পরিবহনের সুপারভাইজারে কাজ করছি।

আলমগীর হোসেন জানান, তার এক ছেলে মাদরাসায় পড়ে। আর তিনি পরিবার নিয়ে সায়েদাবাদ হুজুরের বাড়ির পাশে থাকেন। প্রতিমাসে পাঁচ হাজার টাকা ঘরভাড়া দিতে হয়।

গত মাসে ভাড়া দিতে পারেননি। তিনি বলেন, বাসার মালিক বিদেশে থাকেন। তিনি আমার কথা শুনে বলেছেন, এখন ভাড়া দিতে হবে না। লকডাউন উঠলে ধীরে ধীরে দিয়ে দিতে বলেছেন।

গাড়ি না চললেও প্রতিদিনই টার্মিনালে আসেন জানিয়ে তিনি বলেন, কবে যে গাড়ি চালু হবে? এভাবে কতদিন বাঁচা যায়, বলেন? আমরা কতদিন না খেয়ে থাকব? টার্মিনালের সামনে এক বাড়ির মালিক আমাকে আগে থেকেই চেনেন।

আমাকে ডাক দিয়ে খোঁজ খবর নিলেন; পরে অবস্থা দেখে ৫০০ টাকা দিলেন। আজ কিছু চাল-ডাল কিনব। কিন্তু এভাবে কতদিন চলব? এ রকম বি;পদে জীবনে কোনো সময় পড়ি নাই। ইনকাম কম হলেও কারো কাছে হাত পাতি নাই।

ক্ষোভ জানিয়ে এ পরিবহন শ্রমিক বলেন, পরিবহন ছাড়া সব খোলা। আমরা কী দোষ করেছি? আমাদের কেন না খেয়ে থাকতে হয়? খবরে শুনি প্রধানমন্ত্রী কত টাকা পয়সা দিচ্ছেন। কিন্তু আমরা তো কিছুই পাই নাই। দরকারও নেই। আমরা কাজ চাই, অনুদান না। গাড়ি চালু করে আমাদের খেয়ে-পরে বাঁচার সুযোগ দেন।

শুধু আলমগীরই নন, তার মতো লাখো শ্রমিকেরই বর্তমানে এ অবস্থা। সরকারের কাছে তাদের দাবি, হয় তাদের কাজ দেওয়া হোক, নতুবা থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হোক।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় গত ৫ এপ্রিল থেকে বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। পরে সময় বাড়িয়ে ৫ মে পর্যন্ত তা দীর্ঘায়িত করা হয়। তবে আগে থেকেই চালু আছে পোশাক কারখানা। গত ২৬ এপ্রিল থেকে দোকান-শপিংমল খোলা আছে। বিধিনিষেধের দ্বিতীয় দফা থেকে পুরোদমে গণপরিবহণ বন্ধ রয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চালুসহ তিন দফা দাবিতে রাজধানীর সায়েদাবাদে বি;ক্ষোভ মি;ছিল করেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। ৪ মে সারাদেশে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন তারা।

পরিবহন শ্রমিকদের তিন দফা দাবি-

১. স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে নৌপরিবহন ও পণ্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করা।

২. সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্য সহায়তা দেওয়া।

৩. সারাদেশে ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহন শ্রমিকদের জন্য ১০ টাকায় ওএমএসের চাল বিক্রির ব্যবস্থা করা।

এদিকে ঈদ সামনে রেখে গণপরিবহন চালু করার বিষয়ে সরকার চিন্তা ভাবনার কথা শনিবার (১ মে) জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আন্দোলন কর্মসূচি আহ্বানকারী সংগঠনের নেতারা বলছেন, সরকার শুধুই আশ্বাস দিচ্ছে, বাস্তবায়ন করছে না। ফলে তারা কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছেন।

ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী ঢাকা পোস্টকে বলেন, শপিংমল থেকে শুরু করে সবকিছু চালু রাখা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন।

এতে ৫০ লাখ শ্রমিক কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে গণপরিবহন চালুর দাবি আমরা সরকারের কাছে জানিয়ে আসছি। কিন্তু কোনো ফল হচ্ছে না।

Check Also

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স’তর্কবার্তা,যেকোনো সময় বন্ধ হতে পারে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ফ্লাইট।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স’ত’র্কবা’র্তা, যেকোনো সময় বন্ধ হতে পারে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে ফ্লাইট। বিস্তারিত জেনে নিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *